বুধ. জুলা ৮, ২০২০

এক নজরে ১০টি সংসদ নির্বাচনঃ

বালা-ডেস্কঃ স্বাধিনতার পর থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে মোট ১০টি সংসদ নির্বাচন অনুষ্টিত হয়েছে। সেই ১০টি নির্বাচনের ইতিহাস তুলে ধরা হলোঃ

প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

 ১৯৭৩ সালের ৭ই মার্চ স্বাধীন দেশে সর্বপ্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৩০০টি আসনের মধ্যে ২৯৩টি আসন পেয়ে  জয়লাভ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

মোট ১৫টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন – বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ (২৯৩), বাংলাদেশ জাতীয় লীগ (১),  জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (১),  স্বতন্ত্র (৫)।

সংসদ নেতা – শেখ মুজিবুর রহমান/মোহাম্মদ মনসুর আলী

সংসদের মেয়াদ – ২ বছর ৬ মাস

দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচন

১৯৭৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ২০৭টি আসন পেয়ে জয়লাভ করে।

মোট  ৩০টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসনঃ- বিএনপি (২০৭), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-মালেক (৩৯),বাংলাদেশ জাতীয় লীগ (২),  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-মিজান (২), জাসদ (৮), মুসলিম ও ডেমোক্র্যাটিক লীগ (২০), ন্যাপ (১),  বাংলাদেশ গণফ্রন্ট (২), বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল (১), বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দল (১), জাতীয় একতা পার্টি (১) ও স্বতন্ত্র (১৬)।

সংসদ নেতা: শাহ আজিজুর রহমান

বিরোধী দলীয় নেতা: আসাদুজ্জামান খান

সংসদের মেয়াদ: ৩ বছর।

তৃতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচন

১৯৮৬ সালের ৭ মে তৃতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ।  নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ১৫৩টি আসন পেয়ে জয়লাভ করে। বিএনপি এ নির্বাচন বর্জন করে।

মোট১৩টি  রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন: জাতীয় পার্টি (১৫৩), আওয়ামী লীগ (৭৬), কম্যুনিস্ট পার্টি অব বাংলাদেশ (৫), ন্যাপ-মোজাফফর (২), ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (৫), বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগ (৩), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-রব (৪), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-সিরাজ (৩), জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ (১০), বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (৪), বাংলাদেশ ওয়াকার্স পার্টি (৩) ও স্বতন্ত্র (৩২)।

সংসদ নেতা – মিজানুর রহমান চৌধুরী।

বিরোধী দলীয় নেতা – শেখ হাসিনা।

সংসদের মেয়াদ – ১৭ মাস।

চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

১৯৮৮ সালের ৩ মার্চ চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । এই নির্বাচনটিতে অধিকাংশ রাজনৈতিক দল বর্জন করায় জাতীয় পার্টি ২৫১টি আসন পেয়ে এ নির্বাচনে জয়লাভ করে।

মোট  ৬টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন: জাতীয় পার্টি (২৫১), সম্মিলিত বিরোধী দল (১৯), স্বতন্ত্র (২৫), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-সিরাজ (৩), ও ফ্রিডম পার্টি (২)

সংসদ নেতা: ব্যরিস্টার মওদুদ আহমেদ/ কাজী জাফর আহমেদ।

বিরোধী দলীয় নেতা – আ. স. ম আবদুর রব।

সংসদের মেয়াদ – ২ বছর ৭ ম।

পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

 ১৯৯১ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । নির্বাচনে দু’টি প্রধান রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ প্রায় সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করে। এ নির্বাচনে বিএনপি ১৪০টি আসন পেয়ে জয়লাভ করে।

মোট ২১টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন – বিএনপি (১৪০), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ (৮৮), জাতীয় পার্টি (৩৫), বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগ-বাকশাল (৫), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ-সিরাজ (১), ইসলামী ঐক্য জোট (১), জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ (১৮), বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবি (৫), ওয়ার্কার্স পার্টি (১), ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এনডিপি (১), গণতন্ত্রী পার্টি (১), ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপ মো (১) ও অন্যান্য দল (৩)।

সংসদ নেতা – বেগম খালেদা জিয়া

বিরোধী দলীয় নেতা – শেখ হাসিনা

সংসদের মেয়াদ – ৪ বছর ৮ মাস।

ষষ্ঠ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

 ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ষষ্ঠ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । অধিকাংশ রাজনৈতিক দল নির্বাচনটি বর্জন করায় বিএনপি ২৭৮টি আসন পেয়ে একতরফা জয়লাভ করে।

মোট ৩টি  রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসনঃ বিএনপি (২৭৮), ফ্রিডম পার্টি (১), স্বতন্ত্র (১০)

সংসদ নেতাঃ খালেদা জিয়া

সংসদের মেয়াদঃ মাত্র ১১ দিন।

 

সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

১৯৯৬ সালের ১২ জুন সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ১৪৬টি আসনে জয়লাভ করে। এটি ছিল তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন।

মোট ৮টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন – আওয়ামী লীগ (১৪৬), বিএনপি (১১৬), জাতীয় পার্টি (৩২), , ইসলামী ঐক্য জোট (১), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (১) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী (১), জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ (৩)।

সংসদ নেতা – শেখ হাসিনা।

বিরোধী দলীয় নেতা – বেগম খালেদা জিয়া।

সংসদের মেয়াদ – ৫ বছর।

অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

২০০১ সালের ১ অক্টোবর অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । এ নির্বাচন অনুষ্ঠানের সময় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান ছিলেন লতিফুর রহমান। নির্বাচনে বিএনপি ১৯৩টি আসন পেয়ে জয়লাভ করে।

মোট ১৯টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন – বিএনপি (১৯৩), আওয়ামী লীগ (৬২), জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ (১৭), জাতীয় পার্টি-এ-ইসলামী ঐক্য ফ্রন্ট (১৪), জাতীয় পার্টি- না-ফি (৪), জাতীয় পার্টি-মঞ্জু (১), ইসলামিক ঐক্যজোট (২), কৃষক শ্রমিক জনতালীগ (১) ও স্বতন্ত্র (৬)।

সংসদ নেতা – বেগম খালেদা জিয়া।

বিরোধী দলীয় নেতা – শেখ হাসি…

সংসদের মেয়াদ – ৫ বছর।

নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দিন আহমদের অধীনে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২৩০টি আসন পেয়ে জয়লাভ করে।

মোট ১০টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে।

প্রাপ্ত আসন – আওয়ামী লীগ (২৩০), বিএনপি (৩০), জাতীয় পার্টি (২৭), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (৩), বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি (২), লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি (১), জামায়াতে ইসলামী (২), বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি (১) ও স্বতন্ত্র (৪)।

সংসদ নেতা – শেখ হাসিনা।

বিরোধী দলীয় নেতা – বেগম খালেদা জি।

সংসদের মেয়াদ – ৫ বছর (পূর্ণমেয়াদ)।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় । এ নির্বাচনে মোট ১৪৭টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়। মোট ১৫৩টি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয় আওয়ামী লীগ।

মোট ১৭ টি রাজনৈতিক দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহন করে ।

প্রাপ্ত আসন – আওয়ামী লীগ (৯৬), জাতীয় পার্টি (১২), ওয়ার্কার্স পার্টি (৪),   জাসদ (২) ও স্বতন্ত্র ১৪।

সংসদ নেতা – শেখ হাসিনা

বিরোধী দলের নেতা – রওশন এরশাদ

সংসদ মেয়াদ: চলমান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *